কুর্দিদের গণহত্যার প্রমাণ মিলেছে

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সন্দেহভাজন বন্দি সদস্যদের একের পর এক হত্যা করায় হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ) শুক্রবার ইরাকি কুর্দি নিরাপত্তা বাহিনীকে অভিযুক্ত করেছে। এএফপির খবরে বলা হয়, গত বছরের ২৯ আগস্ট থেকে ৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ইরাকে সন্দেহভাজন আইএস সদস্যদের হত্যার প্রমাণ পেয়েছে এইচআরডব্লিউ।
ওয়াশিংটনভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থাটির এক বিবৃতিতে এর মধ্যপ্রাচ্যবিষয়ক উপপরিচালক লামা ফকিহ বলেন, ‘ইরাকি ও কেআরজি (কুর্দি আঞ্চলিক সরকার) কর্তৃপক্ষের জরুরি ভিত্তিতে এবং অত্যন্ত স্বচ্ছতার সঙ্গে এমন গণহত্যা চালানোর অভিযোগ তদন্ত করে দেখা ও এর সঙ্গে যারা জড়িত রয়েছে তাদের থামানো উচিত।’
সংস্থাটি জানায়, গত বছরের জুলাই মাসে ইরাকের দ্বিতীয় বৃহত্তম মসুল নগরী থেকে আইএস জঙ্গিদের উৎখাতের পর ৭০ কিলোমিটার উত্তরপশ্চিমের সাহেল আল-মালিহা এলাকার একটি স্কুলে সন্দেহভাজন আইএস সদস্য হিসেবে ইরাকি ও বিদেশি নাগরিকদের বন্দি করে রাখে কুর্দি পেশমার্গা যোদ্ধারা। পরে ২৮ আগস্ট থেকে ৩ সেপ্টেম্বরের মধ্যে এদের হত্যা করা হয়। তিনি বলেন, ‘প্রায় এক সপ্তাহ ধরে কুর্দি নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা আইএসের সন্দেহভাজন বন্দি সদস্যদের একের পর এক হত্যা করছে এমন অনেক প্রমাণ রয়েছে।’

Share.

Leave A Reply